প্রিয় গ্রাহক, আপনার প্রশ্নটির জন্য অনেক ধন্যবাদ। চুল ঘন এবং লম্বা হবে কিনা তা আসলে পুরোপুরি নির্ভর করে জেনেটিক এর উপর। মানে বংশানুক্রমিক ভাবে বাবা মার চুলের মতই আপনার চুল হবে। বাইরে থেকে অয়েলিং করেই চুল লম্বা হয়ে যায় না। অনেকে সময় হরমনাল ইমব্যালেন্স হলে চুলের গ্রোথ থেমে যায়। তখন আসলে কোন প্রকার হেয়ার অয়েল, প্যাক ব্যবহার করেও ফল পাওয়া যায় না। চুলের গ্রোথের জন্য দায়ি যেসব ভিটামিন সেসব আপনার খাদ্য তালিকায় রয়েছে তো? চুলের গ্রোথ বাড়াতে কিছু ভিটামিন এবং মিনারেল রয়েছে। যেমন- ভিটামিন এ, বি-ভিটামিন, ভিটামিন সি,ভিটামিন ডি,ভিটামিন ই্,আয়রন, জিংক, প্রোটিন ইত্যাদি। এই ভিটামিন সমৃদ্ধ খাবার আপনার খাদ্য তালিকায় রাখার চেষ্টা করুন। এছাড়া বাড়তি যত্ন হিসেবে যা করতে পারেন তা হল - স্ক্যাল্প ম্যাসাজিং। আপনি যত ভালোভাবে স্ক্যাল্পে অয়েল ম্যাসাজ করবেন তত আপনার স্ক্যাল্পে রক্ত সঞ্চালন ভালোভাবে হবে নতুন চুল গজাবে এবং চুল লম্বা হবে। তাই প্রতিদিন দু’বেলা সকালে এবং রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে মাথার চুলকে উল্টে নিন। ঘাড় থেকে রিভার্স ওয়েতে কপালের দিকে চিরুনি দিয়ে আঁচড়ান ১০ মিনিট। একটা ছোট বাটিতে ৩ টেবিল চামচ খাঁটি নারকেল তেল নিয়ে তাতে ২ চা চামচ কালিজিরার গুঁড়ো দিয়ে হালকা গরম করে নিন। একটা বড় বাটিতে ফুটন্ত গরম পানি ঢেলে তার উপরে তেলের বাটিটা মিনিট পাঁচেক বসিয়ে রাখলেই তেল গরম হয়ে যাবে। এবার এই তেলে ২ টেবিল চামচ পেঁয়াজের রস মিশিয়ে নিন। পুরো মাথার চুলকে ছোট ছোট সেকশনে ভাগ করে নিন। এবার বিলি কেটে কেটে পুরো মাথার স্ক্যাল্পে ধীরে ধীরে তেলটা লাগিয়ে নিন। সার্কুলার মোশনে ম্যাসাজ করতে থাকুন। সবশেষে চুলেও তেল লাগিয়ে নিন। এবার চল্লিশ মিনিট পর গরম পানিতে তোয়ালে ভিজিয়ে নিঙরে নিন,আর পুরো মাথার চুলে তোয়ালেটা মুড়িয়ে ১৫ মিনিট রেখে দিন। স্টিম নেয়ার ফলে তেলটা ভালোভাবে স্ক্যাল্পে অ্যাবসর্ব হয়ে যায়। আর চুল তার প্রয়োজনীয় পুষ্টি পেয়ে ঘন আর লম্বা হবে। আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি। আর কোনও প্রশ্ন থাকলে, মায়াকে জানাবেন,রয়েছে পাশে সবসময়,মায়া।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও