নানা কারণে অনেকেরই রাতে ভালো ঘুম হয় না।তবে ভালো ঘুমের জন্য সহজ কিছু নিয়ম নিজেই তৈরি করে নিতে পারেন। খুব কম ঘুম বা খুব বেশি ঘুম কোনোটাই স্বাভাবিক নয়। একজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের ক্ষেত্রে চার থেকে নয় ঘণ্টা ঘুম স্বাভাবিক এবং ছয় থেকে আট ঘণ্টা ঘুম হলো আদর্শ। দেখা গেছে, যাঁরা নয় ঘণ্টা বা এর চেয়ে বেশি ঘুমান, তাঁদের মধ্যে বিভিন্ন রোগের প্রবণতা বেশি থাকে।নির্দিষ্ট সময় বিছানায় যান: প্রতিদিন একই সময়ে ঘুমাতে যাওয়ার অভ্যাস করুন। এক ঘণ্টার মধ্যে ঘুম না আসলে অন্য কাজে মনোযোগ দিতে হবে। ক্লান্তি না আসা পর্যন্ত কাজটি করতে থাকুন। তবে এ সময় উজ্জ্বল আলো থেকে দূরে থাকুন।পেশীশিথিল রাখুন: পেশী শিথিল কৌশল শরীরের খুব ভাল ব্যায়াম। এর মাধ্যমে আপনি অবসাদ কমিয়ে দ্রুত ঘুমানোর কৌশল আয়ত্ব করতে পারবেন।কুসুমগরম পানিতে গোসল: ভাল ঘুমের জন্য শরীরের তাপমাত্রা হালকা বাড়াতে হবে। গোসলের পর আপনার শরীর আস্তে আস্তে শীতল হয়ে আসবে। একটা সময় আপনার ভাল ঘুম হবে।ধ্যান:ঘুমানো আগে ধ্যান করলে আপনার ভাল ঘুম হবে। কারণ ধ্যানের মাধ্যামে আপনার মানসিক চাপ কমে আসবে। ধ্যান অনিদ্রা দূর করতে সাহায্য করে বলে ২০০৯ সালের একটি গবেষণায় দাবি করা হয়।শারীরিক পরিশ্রম: ঘুমের জন্য শারীরিক পরিশ্রম দারুণ কাজে দেয়। যারা বসে কাজ করেন তাদের চেয়ে যাদের কাজে প্রচুর চলাফেরা করতে হয়, তুলনামূলকভাবে তাদের ঘুম ভালো হয়।যোগব্যায়াম: নিয়মিত যোগ ব্যায়াম ভাল ঘুমের ক্ষেত্রে সাহায্য করতে পারে।তেল ব্যবহার: মাথায় তেল ব্যবহারের অভ্যাস করতে হবে। তেল ব্যবহার করলে মাথা ঠাণ্ডা থাকবে।মোবাইলফোন দুরে রাখুন: মোবাইল ফোন নিয়ে বিছানায় ঘুমাতে যাওয়া কখনোই উচিত নয়। কারণ অনেক সময় চোখে ঘুম জড়িয়ে আসতে শুরু করলেই ফোন চলে আসতে পারে।ভেষজ চা: ক্যাফেইনমুক্ত ভেষজ চা পানের অভ্যাস করতে হবে। এই চা আপনার শরীর চাঙ্গা রাখতে সহায়তা করবে।ক্যাফেইনযুক্ত খাবার পরিহার করুন: ক্যাফেইন যুক্ত খাবার পরিহার করুন। চায়ে প্রচুর পরিমাণ ক্যাফেইন থাকে। রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে কখনোই চা পান করা উচিত নয়।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও