গ্রাহক,প্রতিদিন পানি খাবেন- ১৫ থেকে ২০ গ্লাস আশযুক্ত খাবার অর্থাৎ টাটকা শাক-সবজি, ফল মূল বেশি বেশি খাবেন।সকাল এবং রাতে ২ চামচ ইসুফগুলের ভুষি এক গ্লাস পানিতে মিশিয়ে পর পর দুই সপ্তাহ খাবেন। রাতে এক গ্লাস কুসুম গরম দুধ খাওয়া যেতে পারে।পরপর তিনদিন পায়খানা না হলে দুইটা অথবা তিনটা গ্লিসারিন সাপোজিটর মলদ্বারে নির্দেশ মত ব্যবহার করতে হবে। টয়লেটে যেতে হবে। গরম পানিতে পভিসেপ বড় চামুচের এক চামুচ করে দিয়ে এক বড় গামলায় পানি নিয়ে বসে সেঁক দিবেন । দৈনিক দুই বেলা এভাবে ২০ মিনিট করে গরম পানির ভাব নিতে হবে । একটি কাপড় আয়রন দ্বারা গরম করে ফুলা মাংসের অংশে সেঁক দিবেন রাতে , সেঁক দেয়াড় আগে ভিক্স ঐ স্থানে খুব ভাল করে ম্যাসাজ করবেন চেপে চেপে । পায়খানা সকল সময় নরম রাখবেন , গরম পানিতে ভুষি ভিজিয়ে খাবেন , রাতে পাকা পেঁপে , হাল্কা গরম দুধ খাবেন । পানি দৈনিক ১০-১২ গ্লাস পান করবেন । শাকসবজি বেশি খাবেন , মুরগি , গরুর মাংস এগুলো খাবেন না । লালা আটা রুটি খাবেন , ভাতের চেয়েও খাদ্যে সবজি , স্লাদ বেশি রাখবেন। পায়খানা করার সময় চাপ দিবেন না , বেগ আসলে করবেন । অতিরিক্ত কষ্টকাঠিন্য হলে পায়খানা করার লাক্সাতিভ খেতে পারেন তবে নিয়মিত না ।এতো কিছুর পরেও যদি সুফল না আসে তা হলে অবশ্যই একজন চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

আপনার কোনো প্রশ্ন আছে?

মায়া অ্যাপ থেকে পরিচয় গোপন রেখে নিঃসংকোচে শারীরিক, মানসিক এবং জীবনধারা বিষয়ক যেকোনো প্রশ্ন করুন, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।


মায়া অ্যাপ ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন করুন আপনিও